views your Language

সোমবার, ১৩ জুন, ২০১৬

বাবা আজ তোমার মৃত্যু বার্ষিকী

  ২০০৮ সালে আব্বা তোমাকে  চির শয়নে রেখে অসেছি ! ৫ ই রমজান তুমি যে কখন দু চোঁখ বন্ধ করেছিল তা আমরা কেউই জানি না । সে দিন থেকে আর কোন দিন তুমি চোঁখ দুটি খুলে একবার ও আমাদের দেখ না । বলবো না আজকে তোমায় মনে পরে ! বরং প্রতিদিন প্রতিক্ষনে তোমায় মনে পরে । তোমার অভাব সব সময় অনুভব করি । প্রতি বছর ভাবি তোমায় নিয়ে বিস্তারিত কিছু লিখবো , কিন্তু হয়ে উঠে না যখনি লিখতে যাই , তখনেই চোঁখে অশ্রু ধরে রাখতে পারি না । আজ ও তার ব্যতিক্রম হয় নি । তবে আজকে আর বেশী কিছু লিখছি না । বাবা তুমি যেখানে থাকো ভালো থাক । আমরা সবাই তোমার জন্য দোয়া করি । আব্বা আমি আপনার কথা রাখতে পারি নি , এখনো আম্মাকে সঠিক পথে ফিরাতে পারিনি । বাবা তোমার বড় ছেলে আমাকে পথে বসিয়েছে । আমি কোন রকম কষ্ট করে অনার্স শেষ করছি । তোমার বড় মেয়ের বিয়ে দিয়েছি । তার কোলে ফুটফুটে একটা মেয়ে হয়েছে । তুমি থাকলে তাকে কত না আদর করতে তাই না আব্বা ? দোয়া করেন আব্বা তোমার ছোট মেয়েটা এবার এস এস সি পরীক্ষায় মোটামুটি ভাল ফলাফল করেছে। এখন সে পলিটকনিকে পড়বে বলে ঠিক করেছে। যেটা আমি করতে চেয়েও পারিনি। বাবা আজ তোমার আদর্শের কথা খুব মনে পরে । শত কষ্ট হলেও তুমি হারাম উপার্জনের খাওয়া খাওয়াতে না । বাবা আমিও তোমার আদর্শ হতে এক চুল ও বিচলিত হইনি । আর কোন দিন হবো ও না । এই দোয়াই করি । তুমি যে আমাদের রান্না করে খাওয়াতে তার স্বাদ আজ ও ভুলিনি ! কতো সহজেই না তোমার কথা গুলো লিখে দিলাম তাই না । এজন্য একটি ফটোগ্রাফ কবিতার কথা মনে হয় ।

Comments
1 Comments

1 টি মন্তব্য:

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেন। ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত দিতে ওয়েব সংস্করন দেখুন।ওয়েব সংস্করনে আরও অনেক কিছু অপেক্ষা করছে।আবারও আপনাকে ব্লগের পক্ষথেকে শুভেচ্ছা। ভাল থাকবেন সব সময়