views your Language

বুধবার, ২২ জুন, ২০১৬

সর্বদলীয় সরকারে যা হতো পারে

১৭ নভেম্বর ২০১৩
আমাদের দেশের রাজনিতিতে
সবচেয় বড় শক্তি,দুই দল তথা
আওয়ামিলীগ ও বিএনপি৷এরা দুজনেই চায়
সব সময় চাপে রাখতে ও একে
অপরের সব সময় ক্ষতি করা৷সর্বদলীয়
সরকার ব্যবস্থায় সকল দলের
নেতাদের নিয়ে একটি সরকার গঠনকরার
কথা,সে হিসেবে বিএনপির কিছু নেতার
নাম থাকতে পারে এবং থাকবেও৷আর তারা
সর্বদলীয় সরকার ব্যবস্থায় আসতেও
চাইবে৷কিন্তু বিএনপি তাদের আসতে বাধা
দিবে৷তখন ঐ বিএনপি নেতারা ভেবে
নিবে তাদের সর্বদলীয় সরকারের
মন্ত্রীত্ব দেয়ায় দলের কিছু
নেতাকর্মী তাদের বিরধিতা ও
ক্ষোপ প্রকাশ করছে৷তারা এও
ভাবতে পারেন যাই হোক
আওয়ামিলীগ তাদের অন্য বিএনপি
নেতাদের থেকে কিছুটা নিরপেক্ষ
দৃষ্টিতে দেখছে৷আর তাদের দলের
নেতারা সহ্য করতে পারছে না৷ এই
পরিস্থিতে তারা চাইবে সর্বদলীয়
সরকার ব্যবস্থায় থাকতে আর দল চাইবে
না যেতে এই পরিস্থিতে দল তাদের
বহিস্কার করতে পারে,আর অপর দিকে
তারা বিএনপি ছেড়ে আওয়ামিলীগে
যোগ বা নতুন দল গঠন করতে
পারে৷এই হলে বিএনপির মধ্যে ফাটল
দেখা দিবে,এমনকি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হবে ,
আর এই হলে কি হতে পারে তা আর
আমি বললাম না , আপনারাই বুঝে নিন ৷



২৯ নভেম্বর ২০১৩ 
আবারও আবরোধ দেয়ার জন্য ! আমি
একজন দোকানদার ৷ রাস্তার পাশেই
আমার দোকান ৷আবরোধ বা হরতাল না
থাকলে দোকানে ধুলা বালি সহ
অসহনীয় গাড়ীর হর্ণ এর কারনে
দোকানদারিতো হয়েই না , তার পর
টিভিদেখা খবর শোনা সবেই প্রায়
হয়না ? তার পর আবার আবরোধ হরতাল না
হলে কাস্টমার বেশী থাকে তাই
বেচা-কিনার কারনে সব সময় ব্যাস্ত
থাকতে হয় ! এর কারনে ফেসবুকে
আসতে পারিনা ! আরারও ধন্যবাদ ১৭ দল
আমার মনের কথা বোঝার জন্য ! আমরা
একবেলা না খেয়ে থাকলে কার কি
আসে যায় ?

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেন। ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত দিতে ওয়েব সংস্করন দেখুন।ওয়েব সংস্করনে আরও অনেক কিছু অপেক্ষা করছে।আবারও আপনাকে ব্লগের পক্ষথেকে শুভেচ্ছা। ভাল থাকবেন সব সময়